বন্ধু
সফল যারা কেমন তারা সাক্ষাৎকার

গাছ বিক্রি করে হজের স্বপ্ন পূরণ করলেন এক কৃষক

মুমিন হৃদয়ে সর্বোচ্চ আকাঙ্ক্ষার ইবাদত হলো হজ। যদিও হজের জন্য রয়েছে আর্থিক ও শারীরিক সক্ষমতা। তথাপিও এমন অনেক অসহায় ও শারীরিক প্রতিবন্ধী রয়েছেন যারা হজের জন্য থাকেন আত্মহারা।

আল্লাহ তাআলা সেসব বান্দাদের জন্য হজের ব্যবস্থাও করে দেন। দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে হজের স্বপ্ন পূরণে গাছের পরিচর্যা করেন। গাছ বিক্রির টাকায় সে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেন এক কৃষক। তিনি ১৮ বছর আগে জমির আইলে লাগিয়েছেন গাছ।

অবশেষে অপেক্ষার প্রহর শেষে হজে গেলেন গাইবান্ধার মধ্যবয়স অতিক্রম করা এ কৃষক। বাংলাদেশের গাইবান্ধার জেলার শাদুল্লাপুরের এক কৃষক গাছ বিক্রির টাকায় হজ পালনের উদ্দেশে গিয়েছেন সৌদি আরবে। ফেসবুকে বৃদ্ধ সম্বোধন করা হলেও, ছবি বলে দেয় যে, তিনি মধ্য বয়স অতিক্রম করছেন।

ছবিসহ সম্প্রতি এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে ‘গাছ বিক্রির টাকায় হজ’-এর এ খবর ভাইরাল হয়ে যায়। আর তা হলো- একজন হাজি সাহেব। বয়সে বৃদ্ধ। এসেছেন হজে গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর থেকে। হোটেল লবিতে (বারান্দায়) বসে (বৃদ্ধ হাজির সঙ্গে) কথাবার্তা বলছি। (তাকে) খুব আবেগী মনে হলো।

জানতে চাইলাম, কি কাজ করেন বাড়িতে?
-ক্ষেত-খামার (কৃষি কাজ) করি।
-আচ্ছা! তাহলে হজে আসলেন (খরচ মেটালেন) কীভাবে?

উত্তর দিলেন, বাবা! ১৮ বছর আগে হজের ইচ্ছা করি। কাবা ঘরটা দেখার শখ ছিল অনেক। হজের উদ্দেশে ১৮ বছর আগে জমি ও ক্ষেতের আইলে ইউক্যালিপটাসসহ কিছু গাছ রোপণ করি।

হজ করার আশা নিয়ে গাছের পরিচর্যা করতে থাকি। গাছগুলো বড় হয়। এবার সে গাছগুলোর বেচা টাকা দিয়েই হজে আসলাম।

আমি বললাম, ‘মাশাআল্লাহ’। আপনার হজের টাকাটা কত পিওর! কোন হারামের মিশ্রণ নেই। সম্পূর্ণই পরিশ্রমের টাকা।

Related posts

৩ বোনের যাদুর টিএফসি; অর্ডার করলেই পৌঁছে যায় বাসায়

বাঙালির মুক্তির সনদ ৬-দফাঃ শেখ হাসিনা

কেমন আছেন প্রধানমন্ত্রীর তিন মেয়ে

Leave a Comment

Translate »