বন্ধু
জীবনের গল্প

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ

বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের রূপকার, যার দূরদর্শী সাহসিকতা, দক্ষতায় তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নত হয়ে বিশ্বে প্রশংসা কুড়িয়েছে তিনিই হলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ ১১ জুন, সেই শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস। ষড়যন্ত্রে কবলিত হয়ে দীর্ঘ ১১ মাস কারাভোগের পর ২০০৮ সালের এই দিনে সংসদ ভবন চত্বরে স্থাপিত বিশেষ কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি।

স্বাধীন বাংলাদেশের ইতিহাসে অন্যতম স্মরণীয় একটি দিন শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস।

তৎকালীন ১/১১ অগণতান্ত্রিক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মিথ্যা,বানোয়াট ও হয়রানি ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই ভোরে ধানমন্ডির বাসভবন থেকে শেখ হাসিনা গ্রেফতার হন। গ্রেফতার করে প্রথমে তাকে ঢাকা মেট্রোপলিটন আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে সংসদ ভবন চত্বরে স্থাপিত বিশেষ কারাগারে নিয়ে রাখা হয়।

শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের মধ্যে দিয়ে বাংলার জনগণের গণতন্ত্রের অধিকার অবরুদ্ধ করার অপপ্রয়াস চালায় ও অগণতান্ত্রিক ও অসাংবিধানিক তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার।

বিভিন্নভাবে যড়যন্ত্র করে ১১ মাস কারাগারে রাখা হয় আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। তখন সারা বাংলার আপামর জনগণ, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ধীরে ধীরে প্রতিরোধ গড়ে তোলে শেখ হাসিনার মুক্তির জন্য।

এর মধ্যে কারাবন্দি থাকার সময় কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়েন শেখ হাসিনা। তখন বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে মুক্তি দেয়ার দাবি উঠে সমগ্র মহল থেকে। আওয়ামী লীগসহ অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের ক্রমাগত চাপ, আপসহীন মনোভাব ও অনড় দাবির পরিপ্রেক্ষিতে তত্ত্বাবধায়ক সরকার শেখ হাসিনাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়।

জনগণের অশ্রুসিক্ত ভালোবাসার জন্য, ষড়যন্ত্রকারীদের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা। সব বাধা-বিপত্তি জয় করে আজ স্বমহিমায় উজ্জল দেশের জনগণ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হারানো স্বপ্ন ও সোনার বাংলা বাস্তবায়িত হচ্ছে তার সুযোগ্য কন্যার নেতৃত্বে। আর সবকিছুই সম্ভব হচ্ছে শেখ হাসিনার সুযোগ্য সাহসিকতা ও নেতৃত্ব গুণে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে প্রতি বছর ব্যাপক কর্মসূচি থাকলেও বিশ্ব মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে নানাবিধ কর্মসূচি স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে যার যার জায়গা থেকে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে পরম করুণাময় আল্লাহ তায়ালার কাছে প্রার্থনা করার আহ্বান জানিয়েছে আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি উপলক্ষে নানা আয়োজন থাকলেও করোনাভাইরাসের কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই সব কর্মসূচি পরিহার করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মী এবং দেশবাসীকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে পরম করুণাময় আল্লাহ তালার কাছে প্রার্থনা করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

 
বিজ্ঞাপন :
বাংলাদেশের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোর মতোই আপনার প্রতিষ্ঠানের একটি ওয়েবসাইট এখন সময়ের দাবী। দিন দিন মানুষ অনলাইন নির্ভর হচ্ছে, তাই বর্তমান সময় এবং আগামী দিনগুলোর কথা চিন্তা করে আপনার প্রতিষ্ঠানের ওয়েব সাইট ডিজাইন ও ডেভেলপ করা অত্যন্ত প্রয়োজন।

সুখি আইটিঃ যে কোন ধরনের ওয়েবসাইট ও সফটওয়্যার নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান। মোবাইলঃ 01623282828-01747707411

Related posts

শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার আম উপহার

রাজবন বিহারে ক্ষুর্ধাত বানরদের মুখে খাবার দিলেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান।

দরকার হলে ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেব: প্রধানমন্ত্রী

Leave a Comment

Translate »